Search
Close this search box.

নান্দনিক আলোয় আলোকিত চেরাগী স্তম্ভ

শেয়ার করুন

Facebook
X
Skype
WhatsApp
OK
Digg
LinkedIn
Pinterest
Email
Print
13336054_254245108268927_2946813942349636908_n
নতুন সাজে চেরাগী স্তম্ভ উদ্বোধন করছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন

নান্দনিক সাজে সেজেছে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহি চেরাগী পাহাড়ের স্মৃতিস্তম্ভ।

ঐতিহাসিকদের তথ্যানুযায়ী, পাথরের বুকে চেপে আসা বদর আউলিয়া এ চেরাগী মোড়েই চাটি পরিমাণ জায়গা চেয়ে নিয়েছিলেন তখনকার সময়ে এ অঞ্চলের অধিপতি জ্বীন, দৈত্য-দানবদের কাছ থেকে। কথিত আছে, তিনিই চেরাগী মোড়ে চেরাগ জ্বালিয়ে গোড়াপত্তন করেন চট্টগ্রাম শহরের। সে থেকে প্রতিনিয়ত জ্বলছে চেরাগ।

চেরাগী স্তম্ভ থেকে মনিষীরা চট্টগ্রামকে আলোকিত করলেও এবার সে চেরাগীতে আধুনিকতার ছোঁয়া লেগেছে। এবার আর চেরাগের আলোয় নয়, ডিজিটাল যুগের আধুনিক লাইটের আলোই আলোকিত হলো এই চেরাগী স্তম্ভ।

খখখখখ
নান্দনিক আলোয় আর উন্নয়নের ছোঁয়ায় অপরূপ চেরাগী স্তম্ভ।

শুক্রবার রাতে এই নতুন আলোক সজ্জা ও স্মৃতিস্তম্ভের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দিন।

এ কাজের সার্বিক তত্বাবধায়নের ছিলেন জামালখান ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সৈবাল দাস সুমন।

তিনি বলেন, অবহেলিত চেরাগি চত্বর সারা পৃথিবীর বুকে পরিচিত। অথচ এতদিন এই চেরাগি চত্বর এর যে বেহাল অবস্থা ছিল তা দেখলে মনে হতো এইটি যেন আমাদের ঐতিহ্য নয়, এটি যেন আমাদের বোঝা ! আমি এই চেরাগি চত্বর স্থপতিটিকে ২য় পর্যায়ে পুনঃ নির্মাণ এর দায়িত্ব নেই।

দেশের প্রতি নিজের দায়ভার থেকে এই দেশের ঐতিহ্য কে বিশ্বের দরবারে নান্দনিক রূপে তুলে ধরার প্রবল ইচ্ছা তৈরি হয়। আর সেই প্রবল ইচ্ছা তৈরি হওয়া থেকে আমার এই উদ্যোগ। পুরো দেশের ঐতিহ্য তুলে ধরতে পারি না পারি অন্তত নিজের পক্ষে যতটুকু সম্ভব ততটুকু আমি করতে চাই। আর এটাই ছিল তার প্রয়াস।

ঐতিহ্যের চেরাগি চত্বর আজ সেজেছে নান্দনিক ছোঁয়ায়। আর এই বিষয়ে যিনি সার্বক্ষণিক আমাকে অনুপ্রেরনা,উৎসাহ ও সাহস দিয়ে যান কিংবা কখনো ক্লান্ত হলে কাঁদে ভালোবাসার হাত বুলিয়ে দেন জননেতা আলহাজ্ব আ.জ.ম নাছির উদ্দিন। আজ উদ্বোধন হয়ে হলো ঐতিহ্যবাহী চেরাগি চত্বর মাজার এর স্থপতি।

ভভভভভ
চেরাগীর আলোক সজ্জার স্পন্সর প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম প্রতিদিন পরিবার।

জানাগেছে ঐতিহাসিক স্থান চেরাগী পাহাড় সংস্কার এবং আলোকসজ্জায় স্পন্সর প্রতিষ্ঠান হিসেবে সিটি কর্পোরেশনকে সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছে প্রকাশিতব্য দৈনিক চট্টগ্রাম প্রতিদিন। আগামী ৪ বছর এ প্রতিষ্ঠান চেরাগী পাহাড় সংস্কার এবং আলোকসজ্জার যাবতীয় খরচ বহন করবে পত্রিকা কর্তৃপক্ষ এমনটি জানালেন পত্রিকার প্রকাশক আয়ান শর্মা।

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনকালে চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন নগরীর সৌন্দর্যে এগিয়ে আসায় দৈনিক চট্টগ্রাম প্রতিদিন এর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা এবং পত্রিকার প্রকাশক আয়ান শর্মা ও সম্পাদক গোলাম মাওলা মুরাদকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ধাপে ধাপে বন্দর নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডকে স্বাস্থ্যসম্মত ওর্য়াডের পাশাপাশি সৌন্দর্য বাড়াতে যাবতীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে। এতে নগরবাসীর আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরো জানান, শুধু চেরাগী পাহাড় নয় ‘ক্লিন ও গ্রীন সিটি’ বাস্তবায়নে জামালখান ওয়ার্ডে চলছে সড়কের মধ্য অংশ বা মিড আইল্যান্ড সংস্কার। বেসরকারি উদ্যোগে মিড আইল্যান্ড সবুজায়নের মাধ্যমে করা হচ্ছে সড়কের সৌন্দর্যবর্ধন।

জামালখান ওয়ার্ডের চেরাগী পাহাড় থেকে প্রেস ক্লাব পর্যন্ত গড়ে তোলা হচ্ছে নতুন নকশার মিড আইল্যান্ড। এর মধ্য দিয়ে বদলে যাচ্ছে পুরো জামালখানে চিত্র।

জামালখান ওয়ার্ড কাউন্সিলরের উদ্যোগে দুটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সিপিডিএল ও এয়ারবেল এ প্রকল্পে কাজ করছে। এ ব্যাপারে আলোচনা করা হচ্ছে আরও কিছু বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সাথে। আগামী ৬ মাসের মধ্যেই পুরো জামালখান ওয়ার্ডে পরিত্যক্ত স্থান ও মিড আইল্যান্ড সংস্কার ও সবুজায়ন করা হবে।

জানা যায়, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের অনুমতি সাপেক্ষেই এ উন্নয়ন এবং সৌন্দর্য্য বর্ধনের কাজ করা হচ্ছে। ওয়ার্ড কাউন্সিলরের উদ্যোগে এতে অর্থায়ন করবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো। বর্তমানে কাজ চলছে জামালখান সড়কের প্রেস ক্লাবের সামনে ও চেরাগী পাহাড়ের সামনে মোমিন রোডে।

জাতীয়

১৮ জুলা ২০২৪

সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি নন কোটাব্যবস্থা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীরা। তাদের প্ল্যাটফর্ম বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের এক বিজ্ঞপ্তিতে বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই)

জাতীয়

১৮ জুলা ২০২৪

কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সাথে বসার বিষয়ে সরকারের ইতিবাচক বার্তার পর বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের সমন্বয়ক হাসনাত আবদুল্লাহ বলেছেন, গুলি আর আলোচনা

জাতীয়

১৮ জুলা ২০২৪

কোটা সংস্কারপন্থিদের আন্দোলনে উত্তাল দেশ। এরইমধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগের সঙ্গে চলছে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া। তারই মধ্যে ধানমনণ্ডির রাপা