Search
Close this search box.

গুন্নু শিবির কর্মী থেকে মাজারের খাদেম!

শেয়ার করুন

Facebook
X
Skype
WhatsApp
OK
Digg
LinkedIn
Pinterest
Email
Print
Mithu1465128712
মিতু হত্যাকাণ্ডের ঘটনাস্থল জিইসি ওআর নিজাম রোড়।

পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুর হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে গ্রেফতার হওয়া আবু নছর গুন্নু (৪০) এক সময় শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকলেও বর্তমানে নিজেকে আড়াল করতে মাজারের খাদেম সেজে অনেকটা আত্মগোপনে ছিল বলে ধারণা করছে পুলিশ।

শিবির করার সময় গুন্নু হত্যা সহ অনেক ঘটনার আসামী ছিল। তার গ্রামের বাড়ি সীতাকুণ্ড হলেও হামলা মামলা এবং বিভিন্ন অপকর্ম থেকে নিজেকে আড়াল করতে সে এক সময় মধ্য প্রাচ্যে চলে যায়। পরে সে দেশে ফিরে এসে হাটহাজারীর প্রত্যন্ত অঞ্চল পশ্চিম ফরহাদাবাদ এলাকায় মুসাবীয়া দরবার নামে একটি মাজারের খাদেম (তত্বাবধায়ক) হিসেবে নিজেকে নিয়োজিত করে। তবে খাদেমের আড়ালেও সে মূলত বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িত ছিল বলে পুলিশ জানতে পারে।

গত ৫ জুন রোববার পুলিশের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুর হত্যার পর পুলিশ প্রথম থেকে হত্যাকাণ্ডের পর থেকে জঙ্গি সংগঠনগুলোর দিকে সন্দেহের তীর ছুঁড়ে। তবে পাশপাশি শিবিরকে সন্দেহের বাইরে রাখেনি।

চট্টগ্রাম পুলিশ কমিশনার ইকবাল বাহার সোমবার সাংবাদিকদের বলেছিলেন, আগে শিবির করতো এমন লোকজনই জঙ্গির সংগঠনে ঢুকে বিভিন্ন নাশকতা চালাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আমরা আগের হত্যাকাণ্ডের তদন্তে দেখেছি শিবিরের একটি অংশ পর্যায়ক্রমে জেএমবিতে যোগ দেয়। এ কারণেই হত্যাকাণ্ডে জেএমবির সঙ্গে শিবিরও জড়িত ছিল কি না সেটা আমরা খতিয়ে দেখছি।

এদিকে বুধবার সকালে জেলার জেলার হাটহাজারী থানার পশ্চিম ফরহাদাবাদ এলাকা থেকে মিতু হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহভাজন হিসেবে সাবেক শিবির কর্মী আবু নছর গুন্নুকে গ্রেফতারের পর চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)র অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) দেবদাস ভট্টাচার্য জানান, আমরা সোর্সের মাধ্যমে অনেকটা নিশ্চিত হয়ে আবু নছর গুন্নু গ্রেফতার করেছি। তার অতীত কর্মকান্ড পর্যালোচনা করে হত্যাকাণ্ডের সাথে তার সম্পৃক্তা থাকতে পারে বলে মনে হচ্ছে। তাকে রিমাণ্ডে এনে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এ পুলিশ কর্মকর্তা জানান গুন্নু’র গ্রামের বাড়ি সীতাকুন্ড উপজেলায়। তার বাবার নাম মোফাজ্জল হোসেন। সে সীতাকুণ্ডে শিবিরের রাজনীতি করতো।

১৯৯৫ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। এ ১৫ বছরে সে বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ে। তার বিরুদ্ধে সীতাকু- থানায় হত্যাসহ কয়েকটি মামলা দায়ের হলে সে পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যায়। এ পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানান, ২০১০ দিকে সে মধ্যপ্রাচ্যের একটি দেশে চলে যান। ৩/৪ বছর আগে সে দেশে ফিরে আসে। এর পর থেকে সে নিজেকে আড়াল করতে হাটহাজারীর পশ্চিম ফরহাদাবাদ এলাকার একটি মাজারের তত্বাবধায়ক হিসেবে নিয়েজিত হয়।

তিনি বলেন, তার সঙ্গে জঙ্গি সম্পৃক্ততার বিষয়ে আমাদের কাছে তথ্য আছে। তাই তাকে মিতু হত্যার সন্দেহভাজন আসামী হিসেবে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে আবু নছর মিতু হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নিয়েছিল কি না তা নিশ্চিত করে বলতে পারেনি।

মিতু হত্যার পর সিএমপি নিয়মিত আয়োজিত প্রেসবিফিং এ বুধবার এ সংক্রান্ত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে দেবদাস ভট্টাচার্য বলেনে, ‘বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।’ তবে হত্যায় তার যে সম্পৃক্ততা রয়েছে, এ ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছি আমরা। তবে প্রেসবিফিং এ গ্রেফতারকৃত গুন্নুকে হাজির করেনি পুলিশ।

নগর গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, মিতু হত্যায় সরাসরি তিন জন অংশ নিলেও এতে জড়িত আরও অনেকে। হত্যার সময় কাছাকাছি দাঁড়িয়ে থাকা ও হত্যাকা- সম্পন্নের পর মোটরসাইকেলের পেছনে মাইক্রোবাসটির চলে যাওয়াকে রহস্যজনক বলে মনে করা হচ্ছে। ওই মাইক্রোবাসে খুনিদের সহযোগীরা অবস্থান করছিল বলেও সন্দেহ করছেন গোয়েন্দারা।

সংবাদ সম্মেলনে দেবদাস ভট্টাচার্য বলেন, “মিতু বাসা থেকে কখন বের হবেন, মোটরসাইকেলে করে যারা পালাবে তাদের ‘ব্যাক আপের’ জন্য একটা আলাদা গ্রুপ ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। বেশ কয়েকজন সমন্বিতভাবে অংশ নিয়েছে হত্যায়।”

তিনি বলেন, সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, দুর্বৃত্তরা যখন মিতুকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করছিল, তখন জিইসি মোড়ের দিকে কিছুটা অদূরে দাঁড়িয়ে ছিল একটি কালো মাইক্রোবাস। মিতুর মৃত্যু নিশ্চিত করে ঘাতকরা মোটরসাইকেলযোগে পালিয়ে যাওয়ার ১০ সেকেন্ডের মাথায় ঘটনাস্থলে আসে মাইক্রোবাসটি। পাঁচ সেকেন্ডের মতো ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়ে আস্তে আস্তে চলা শুরু করে মাইক্রোবাসটি। পরে গোলপাহাড় মোড়ের দিকে চলে যায় ওই মাইক্রোবাস। কালো কাচের এ মাইক্রোর চালকের আসনের পাশের জানালাটা খোলা ছিল। অন্যসব জানালা বন্ধ ছিল। এ কারণেই গোয়েন্দারা মাইক্রোবাসের যাত্রীর সঙ্গে এ খুনের সম্পৃক্ততার বিষয়টি খতিয়ে দেখতে শুরু করেছে।

সারাদেশ

২৫ জুন ২০২৪

কুমিল্লায় কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে কারামুক্ত হয়েছেন নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া। আজ সোমবার (২৪

সারাদেশ

২৫ জুন ২০২৪

ময়মনসিংহ ও নেত্রকোণা জেলায় বাসা-বাড়িতে গ্যাস সরবরাহ অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ হয়ে গেছে। মঙ্গলবার (২৫ জুন) সকাল থেকে গ্যাস পাচ্ছে

জাতীয়

২৫ জুন ২০২৪

পুরান ঢাকার হাকিমপুরী জর্দার ব্যবসায়ী মো. কাউছ মিয়া (৯৪) মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সোমবার (২৪ জুন)