Search
Close this search box.

সিডনিতে সাবেক স্বামীসহ বাংলাদেশি তরুণীর লাশ উদ্ধার

শেয়ার করুন

Facebook
X
Skype
WhatsApp
OK
Digg
LinkedIn
Pinterest
Email
Print

Sydney-news-1

সিডনীতে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত এক তরুনী ও তার সাবেক স্বামীর লাশ উদ্ধার করেছে সে দেশের পুলিশ।

ডেভ পিলে (৪০) ও বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তাসমিন বাহারের (৩৫) মধ্যে সম্প্রতি বিচ্ছেদ হয়। তাদের সংসারে একটি মেয়েও ছিল। ৬ বছরের সম্পর্কের ইতি টানলেও বাবা দিবসে মেয়েকে তার বাবার সঙ্গে সময় কাটানোর সুযোগ দিতে সিডনীর স্মিথফেল্ড অঞ্চলের ওই বাড়িতে এসেছিলেন তাসমিন।

রবিবার দুপুরে পিল্লাইয়ের এক আত্মীয় ওই বাড়িতে গিয়ে বাথরুমে দুজনের লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয়।

নিহত বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তাসমিন বাহার (৩৫)

দ্য সিডনি মর্নিং হেরাল্ডের খবরে বলা হয়, স্মিথফেল্ডের ওই বাড়িতে তাসনিম ও ডেভ আগে একসঙ্গেই থাকতেন।

পুলিশ ধারণা করছে, ঘটনাটি হত্যার পর আত্মহত্যা হতে পারে। ঘটনার সময় তাদের তিন বছরের মেয়েকে ঘুমন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে। তবে মেয়েটি অক্ষত অবস্থায় পাওয়া যায়।

তাসমিনের বোন সারাগিন বাহার হেরাল্ডকে জানান, তার বোনের মৃত্যুর খবর শুনে নিউইয়র্ক থেকে অস্ট্রেলিয়ায় যাবেন তিনি। যদিও তার বাংলাদেশে আসার পরিকল্পনা ছিল। তার ভাগ্নিকে নিজের জিম্মায় নিতে চান তিনি।

সারাগিন বলেন, ‘তাসমিন সম্পূর্ণ সুস্থ ছিল দুই দিন আগে যখন তার সঙ্গে আমার কথা হয়।’

তিনি বলেন, ডেভের সঙ্গে তার সম্পর্ক ৬ বছরের। ডেভ তাসমিন ও তার মেয়েকে মারধর করতো বলেও সারাগিনের কাছে জানিয়েছিলেন তাসমিন।

খবরে বলা হয়, অস্ট্রেলিয়াতে তাসমিন ২০০৯ সালে যান। উচ্চ শিক্ষিত তাসমিন সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি। আর কাউকে সন্দেহ করছে না। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

খেলাধুলা

১৫ জুলা ২০২৪

ঘোষণাটা আগেই দিয়ে রেখেছিলেন লিওনেল মেসি। কোপা আমেরিকার শিরোপা দিয়েই স্মরণীয় করে রাখবেন বন্ধু দি মারিয়ার বিদায়। যেই কথা সেই

সারাদেশ

১৫ জুলা ২০২৪

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ সীমান্তে খাসিয়া আদিবাসীদের গুলিতে বাংলাদেশি দুই নাগরিক নিহত হয়েছেন। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন আরও একজন। রোববার (১৪ জুলাই)

সারাদেশ

১৫ জুলা ২০২৪

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে৷ এতে বেশ কয়েকজন আন্দোলনরত