Search
Close this search box.

“জঙ্গি দেখলেই মানুুষ পিটিয়ে মেরে ফেলবে”-ডিসি মেজবাহ

শেয়ার করুন

Facebook
X
Skype
WhatsApp
OK
Digg
LinkedIn
Pinterest
Email
Print

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:

mirsarai-dc-photo-19-09-2016
মীরসরাইয়ে বিদায় সংবর্ধনায় বক্তব্য রাখছেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন।

চট্টগ্রামের বিদায়ী জেলা প্রশাসক (ডিসি) মেজবাহ উদ্দিন বলেছেন, ‘এদেশের মানুষ জঙ্গিবাদকে সমর্থন করেন না। মানুষ জঙ্গিদের মনেপ্রাণে ঘৃৃণা করেন। তাদের ওপর মানুষ এতটা ক্ষুদ্ধ যে কোথাও জঙ্গি দেখলেই মানুুষ পিটিয়ে মেরে ফেলবে।’

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন ডিসি মেজবাহ উদ্দিন ।

বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘জঙ্গি তৎপরতার সঙ্গে ইসলামের কোন সম্পর্ক নেই। বিদেশি অর্থায়নে এখানে ইসলামের নামে জঙ্গি তৎপরতা চালানো হয়। এদেরকে অর্থ দেয় ইসরাইল আর মাঝে মাঝে দেয় পাকিস্তান।’

সম্প্রতি সরকার কর্তৃক শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের প্রসঙ্গ তুলে ধরে মেজবাহ উদ্দিন বলেন, ‘মানুষের দোয়ায় আমি শ্রেষ্ঠ জেলা প্রশাসকের মর্যাদা অর্জন করেছি। খুলনার ডিসি হিসেবে কর্মরত থাকা অবস্থায় আমি সাধারণ মানুষের জন্য জেলা প্রশাসকের দুয়ার খুলে দিয়েছিলাম। পূর্বে স্লিপ পদ্ধতির মাধ্যমে ডিসির সঙ্গে সাধারণ মানুষদের দেখা করতে হতো। আমি যোগদানের পর থেকে ওই নিয়ম বন্ধ করে সাধারণ মানুষের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছিলাম। এরপর চট্টগ্রামের যোগদানের পরও সাধারণ মানুষের অভিযোগ অনুযোগ শোনার চেষ্টা করেছি। মানুষের জন্য কাজ করেছি। তাদের দোয়া আমার সাথে আছে।’

সরকারি কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয় সাধনের ওপর গুরুত্ব দিয়ে ডিসি বলেন, ‘জনগণের সেবা করতে হলে তাদের মন জয় করতে হলে সমন্বিত উদ্যোগের বিকল্প নেই। সরকারি কর্মকর্তা এবং জনপ্রতিনিধিদের একযোগে জনগণের কল্যাণে কাজ করতে হবে।’

মিরসরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়া আহম্মদ সুমনের সভাপতিত্বে ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হুমায়ূন কবির খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন/ মিরসরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান (দায়িত্বপ্রাপ্ত) ইয়াসমিন আক্তার কাকলী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, বারইয়ারহাট পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন, মিরসরাই পৌর মেয়র গিয়াস উদ্দিন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আলী আজগর, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডার কবির আহম্মদ, ইছাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল মোস্তাফা, করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনায়েত হোসেন নয়ন প্রমুখ। এছাড়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, মুক্তিযোদ্ধা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সাংবাদিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, এনজিও প্রতিনিধি ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয়

১৮ জুলা ২০২৪

সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি নন কোটাব্যবস্থা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীরা। তাদের প্ল্যাটফর্ম বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের এক বিজ্ঞপ্তিতে বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই)

জাতীয়

১৮ জুলা ২০২৪

কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সাথে বসার বিষয়ে সরকারের ইতিবাচক বার্তার পর বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের সমন্বয়ক হাসনাত আবদুল্লাহ বলেছেন, গুলি আর আলোচনা

জাতীয়

১৮ জুলা ২০২৪

কোটা সংস্কারপন্থিদের আন্দোলনে উত্তাল দেশ। এরইমধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগের সঙ্গে চলছে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া। তারই মধ্যে ধানমনণ্ডির রাপা